বিভিন্ন ভাইরাস প্রতিরোধে দারুচিনির অবিশ্বাস্য গুণাগুণ জেনে নিন

রান্নায় অনেক ধরনের গরম মশলা ব্যবহার হয়ে থাকে। এর মধ্যে দারুচিনি অন্যতম। খাবারে সুসন্ধ ছড়াতে দারুচিনির জুড়ি নেই। তবে কিছু গবেষণায় পাওয়া যায়, দারুচিনি খাবারের গন্ধ বাড়ায় না সেই সঙ্গে শরীরের থাকা ভাইরাস ধ্বংস করে।

এইচআইভি, অ্যাডিনোভাইরাস ও হার্পিস সিমপ্লেক্স ভাইরাসের বিরুদ্ধে দারুচিনি কার্যকরী বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে। জানেন কি? ১৯১৮ সালে স্প্যানিশ ফ্লু মহামারির সময় যারা দারুচিনির ফ্যাক্টরিতে কাজ করতেন, তাদের মধ্যে ভাইরাসটিতে আক্রান্তের হার ছিল হাতে গোনা। স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সেসময় স্প্যানিশ ফ্লুর একটি জনপ্রিয় পথ্য ছিল দারুচিনির গুঁড়া অথবা দুধে দারুচিনি তেলের ব্যবহার। এতে নাকি অনেকেই ভালো হয়ে উঠেছিলেন।

বর্তমানে কোভিড-১৯ এর প্রতিষেধক হিসেবেও ব্যবহার করা হচ্ছে দারুচিনি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা দারুচিনি ব্যবহার করছেন। তবে দারুচিনি করোনাভাইরাস ধ্বংস করতে পারে এখনো এমন কোনো প্রমাণ মেলে নি। তা না পারলেও দারুচিনি করোনাভাইরাস সংক্রমণের তীব্রতা প্রতিরোধ করতে পারবে বলে আশা করছেন অনেকে।

জেনে নিন দারুচিনি যে যে ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে-

> দারুচিনি শরীরের প্রদাহ কমাতে পারে। আমাদের শারীরিক প্রতিরক্ষার জন্য প্রদাহ গুরুত্বপূর্ণ হলেও প্রয়োজনাতিরিক্ত প্রদাহে মারাত্মক ক্ষতি হয়। আর সেটিই কমাতে সহায়তা করে দারুচিনি।

> ভারতীয় এক গবেষণায় দাবি করছে যে, দারুচিনির প্রোসায়ানাইডিন পলিমার এইচআইভি সংক্রমিত ব্যক্তিদেরকে এইচআইভি কন্ট্রোলারে পরিণত করতে পারবে। গবেষকদের মতে, তারা দারুচিনিতে যে মলিকিউল পেয়েছেন তা এইচআইভি ভাইরাসকে দমিয়ে রেখে একটি ডিফেন্স প্রোটিনকে সুরক্ষা দিতে পারে।

> এশিয়ার ঐতিহ্যবাহী হার্বাল মেডিসিনের অন্যতম অনুষঙ্গ হলো দারুচিনি, বিশেষ করে বুকের অসুস্থতায় দারুচিনি ব্যবহৃত হয়। গবেষণায় দেখা গেছে, দারুচিনির সিনামালডিহাইড শ্বাসতন্ত্রের রোগ অ্যাডিনোভাইরাসের বিরুদ্ধে কার্যকর। তাদের মতে নিয়মিত দারুচিনি খেলে নিউমোনিয়া, শ্বাসনালির ফোলা, কাশি, গলার কর্কশতা ও শ্বাসপ্রশ্বাসের অসুবিধা কমে যেতে পারে।

> জাপানি গবেষণায় দেখা গেছে, সিলন দারুচিনির সিনাজিলানিন বাকুলুভাইরাসের সংখ্যা বৃদ্ধিতে বাঁধা দিয়েছে। বাকুলুভাইরাস পোকামাকড়কে সংক্রমিত করে। এ উপাদানটি হার্পিস সিমপ্লেক্স ভাইরাস-১ ও হার্পিস সিমপ্লেক্স ভাইরাস-২ এর বিরুদ্ধে কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে।

> এতে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট পলিফেনল ও প্রোঅ্যান্থোসায়ানাইডিন আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলবে।

> দারুচিনির অ্যান্টিভাইরাল, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিফাঙ্গাল প্রপার্টি বিভিন্ন রোগের ঝুঁকি কমাতে পারে। বিশেষ করে শ্বাসতন্ত্রের রোগ ও হার্টের রোগ সারাতে খুবই সহায়ক দারুচিনি।

কীভাবে খাবেন দারুচিনি?

দারুচিনিকে পানিতে সিদ্ধ করে অথবা গরম পানিতে দারুচিনির গুঁড়া মিশিয়ে পান করতে পারেন। তবে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া দারুচিনি অয়েল যাকে সিনামন বার্ক অয়েল অথবা সিনামল লিফ অয়েল বলা হয়। ব্যবহার করবেন না। সিনামন অয়েল এত বেশি শক্তিশালী যে এক বা দুই ফোঁটার বেশি খেলে শরীরের ভেতর পুড়ে যেতে পারে। কোন খাবারে কতটুকু সিনামন অয়েল মেশালে ক্ষতির আশঙ্কা নেই তা জানতে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

৫০০০+ মজদার রেসিপির জন্য Google Play store থেকে Install করুন “Bangla Recipes” মোবাইল app…. 🙂
.
মোবাইল app Download Link >>> https://bit.ly/2YsK4MO

Loading...