জেনে নিন পরিবারের ১ম সন্তান হবার পর কি কি কারণে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেকার ভালোবাসা আগের মতন থাকে না, ৩নং কারণ সবচেয়ে বেশি দেখি যায়

চুটিয়ে প্রেম করার পর বিয়ে করেই সংসারে নতুন অতিথি এলো।

দুজনের সংসারের ফাঁকাভাব ভরে উঠলো সন্তানের (newborn baby) চিৎকারে। কিন্তু তারপরেই সেই প্রেম দায়িত্বের চাপে যায় হারিয়ে।

এমনটাই তো চেনা ছক সংসারের তাই না?

বিয়ের দুই-তিন বছরের মাথায় সন্তানের প্ল্যান (newborn baby) (newborn baby) এখন খুব সাধারণ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সন্তান এলে দুজনের সম্পর্ক আরও গভীর হবে এই ভেবেই এই পথে এগোনো।

কিন্তু বাস্তবে দেখা যায় তখন আর দিনগুলি স্বপ্নের মতো এগোচ্ছে না।

অথচ দূরত্ব কমানোর জন্যেই দুজনের পৃথিবীতে তৃতীয়জনকে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

তাহলে এমনটা কেন হয়?

১. আসলে বাস্তবে সন্তানের জন্মের পর (newborn baby) অন্তত ছয় সপ্তাহ অবধি সময় সেই নবাগত শিশুকেই দিতে হয়।

বিশেষ করে সদ্য হওয়া মা তার নতুন দায়িত্ব বুঝতে বুঝতেই অনেকটা সময় কেটে যায়।

তারপর সন্তানকে সামলাতে গিয়েই মা-বাবা দুজনকেই নাকানি চোবানি খেতে হয়।

তখন সদ্যোজাতকে ছাড়া জীবনে আর কোনো তৃতীয় বিষয় গুরুত্বপূর্ণ হয় না তাদের কাছে।

রাত জেগে সন্তানকে খাওয়ানো, সকাল হলেই আবার তার সেবায় লেগে পড়া এটাই হয় তাদের রোজনামচা (daily routine)।

তার উপর তখন সেই সদ্য হওয়া মা শারীরিক ও মানসিকভাবে থাকেন দুর্বল।

২. আসলে সন্তান জন্ম দেওয়ার পর যখন মহিলাটি বোঝেন যে এবার সমস্ত এটেনশন তার সন্তানের দিকেই থাকবে সবার তখন তার মধ্যে হীনমন্যতা (inferiority complex) তৈরি হয়।

হরমোনের মাত্রা ওঠা নামা করতে থাকে। ফলে মেজাজ খিটখিটে (inferiority complex) হওয়াটাই স্বাভাবিক।

তাই টুকটাক কারণেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে লাগে ঝগড়া। অপরিণত ব্যক্তি হলে ফল হয় বিবাদ।

৩. আবার এমন উল্টো ভাবনা হয় সদ্য হওয়া বাবাটির। তিনি দেখেন তার স্ত্রী তার থেকে বেশি সময় দিচ্ছেন তাদের সন্তানকেই।

সমস্ত সময় দেওয়ার পর যে সময়টা মেয়েটির হাতে বেঁচে থাকে সেই সময়ে সে আর কথা বলা বা প্রেম করা নয় বিশ্রাম নিতেই স্বচ্ছন্দ বোধ করে।

তাই মেয়েটিকে সঙ্গে আবার ছেলেটির মনেও অবসাদ চলে আসে।

৫০০০+ মজদার রেসিপির জন্য Google Play store থেকে Install করুন “Bangla Recipes” মোবাইল app…. 🙂
.
মোবাইল app Download Link >>> Bangla Recieps App

Loading...